চট্টগ্রাম   বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১  

শিরোনাম

সাতক্ষীরায় ৩ মাসে কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত ১১’শ পথচারী

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি::    |    ০৯:২০ পিএম, ২০২১-০৫-০২

সাতক্ষীরায় ৩ মাসে কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত ১১’শ পথচারী

 মুখ-মাথা আপাদমস্তক কাপড়ে মোড়া অবস্থায় ত্রাণ ও খাদ্য সামগ্রী সংগ্রহের জন্য যখন দিকবেদিক ছুটছে মানুষ। ঠিক তখনই সাতক্ষীরার বিভিন্ন এলাকায় বেড়েই চলছে ক্ষুধার্ত বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব। এতে অতিষ্ঠ পথচারী বৃৃদ্ধসহ কোমলমতি শিশুরাও। এদিকে গত ৩ মাসে জেলায় কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন শিশু ও নারীসহ ১১০০ জন পথচারী। তারা সকলেই জলাতঙ্ক থেকে রক্ষা পেতে ‘র‌্যাবিস ভ্যাকসিন’ গ্রহণ করেছেন। অপরদিকে অন্যান্য প্রাণীর কামড়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯৯ জন। 


শহর ঘুরে ঘুরে দেখা যায়, কলেজ মোড়, ফুড অফিসের মোড়, পোস্ট অফিসের মোড়, জুবলি স্কুল মোড়, নবারুণ স্কুল মোড়, পিটি আই মোড়, পলাশপোল স্কুল মোড়, সুলতানপুর বাজার, ইটাগাছা, কামালনগর, কদমতলা, চৌধুরীপাড়া, আনন্দপাড়া, শিবতলা মোড়, পুরাতন সাতক্ষীরা, বদ্দিপুর কলোনী, থানাঘাটা, মিল বাজার এলাকায় কুকুরের উপদ্রব সবচেয়ে বেশি। বিশেষ করে ফুড অফিসের মোড় ও পোস্ট অফিসের মোড় এলাকায় দল বেঁধে ১৫ থেকে ২০ টি কুকুর ঘোরাঘুরি করছে। স্থানীয় লোকজন বলছেন, সন্ধ্যা নামলেই বাড়ছে কুকুরের উপদ্রব। পথচারীদের গতিরোধ করে দাঁড়াচ্ছে কুকুরের দল।


সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত জানুয়ারি মাসে ৪৬৪, ফেব্রুয়ারী মাসে ৩২৪ ও মার্চ মাসে ৩১২ জন কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন। এছাড়াও অন্যান্য প্রাণীর কামড়ে জানুয়ারি মাসে ১৬৩, ফেব্রুয়ারী মাসে ১৭৯ ও মার্চ মাসে ১৫৭ জন আক্রান্ত হয়ে সেবা গ্রহণ করেন। এদের বেশির ভাগই শিশু ও বয়স্ক।  আরও জানা যায়, কয়েকদিন পূর্বেও সদর হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে কুকুর ও বিড়ালের কামড়ে আক্রান্ত হয়ে আসা ১২০ থেকে ১৮০ জন রোগীকে বিনা মূল্যে ভ্যাকসিন (টিকা) দিচ্ছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।


এ ব্যাপারে জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শহিদুল ইসলাম জানান,  জেলায় প্রায় ১০ থেকে ১২ হাজারের অধিক কুকুর রয়েছে। সম্প্রতি ওই কুকুরগুলো ক্ষুধার জ্বালায় অতিষ্ঠ। তারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পথচারীদের কামড় দিয়ে আহত করছে। কিন্তু পূর্বের মতো এখন আর ওই কুকুরগুলো মেরে ফেলার নির্দেশনা নেই। সেজন্য তাদেরকে না মেরে জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকা দেওয়া হচ্ছে। ওই কুকুরের টিকা জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। আমরা শুধু  টেকনিক্যাল সার্পোট (কারিগরি সহায়তা) দিয়ে থাকি। তবে কেন কুকুরের জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকা বন্ধ আছে তা আমি বলতে পারব না।

এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. শাফাওয়াত হোসেন জানান, সরকারি নির্দেশে কুকুর মারা ও প্রতিষেধক ভ্যাকসিন (টিকা) সরবারহ বন্ধ আছে। তবে কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত রোগীদের জন্য হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণ রেভিস ভ্যাকসিন আছে। ভ্যাকসিন সংকটের কোনো কারণ নাই।

শহরে কুকুরের উপদ্রব বেড়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন পৌরসভার মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতী জানান, প্রতিবছর পৌর কর্তৃপক্ষ কুকুর নিধন কর্মসূচি পরিচালনা করত। কিন্তু কুকুর নিধন চালানো বন্ধে হাইকোর্টে রিটের কারণে ২০১৮ সালের শুরু থেকে তা বন্ধ আছে। এরপর থেকে ভ্যাকসিন বাবদ  কোনো সহায়তা না পাওয়ায় এখন কুকুরের ‘ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচিও’ বন্ধ রয়েছে।


শিশু অয়নের মা জানালেন, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ির বাইরে অন্য  ছেলেদের সঙ্গে খেলছিল অয়ন। হঠাৎ পশ্চিম দিক থেকে কুকুরটি এসে হাতে ও পায়ে আঁচড় কাটে। সেই সঙ্গে বাঁ হাতের বাহুর ওপরের অংশ খামচে মাংস তুলে ফেলে। হাসপাতালে যেয়ে জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকা দিয়ে নিয়ে এসেছি। এমন ঘটনায় জেলার শত শত পথচারীও আক্রান্ত হচ্ছে। ওই কুকুরগুলোর কামড় থেকে জনমানুষকে রক্ষা করার জন্য একটি বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করা জরুরী।    

একাধিক পথচারী জানান, একটি জনবহুল জেলা সাতক্ষীরা। এই জেলার ৭ টি উপজেলা, ২ টি পৌরসভা ও ৭৮ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাট-বাজার, পাড়া-মহল্লায় প্রায় ১৫ হাজারের অধিক কুকুর রয়েছে। ওই কুকুরগুলো মহামারির সময়ে ব্যাপকতর খাদ্য সংকটে পড়ে দিনদিন হিং¯্র হয়ে উঠেছে। এবং আমাদেরকে প্রতিনিয়ত কামড় দিয়ে আহত করছে। বাইরের কাজ সেরে রাতে রাস্তা দিয়ে বাড়ি ফিরে যাওয়া খুবই মুশকিল আমাদের। ওই কুকুরগুলোর হিং¯্রতা বন্ধের জন্য জেলা প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা। 

রিটেলেড নিউজ

রাঙামাটির কাপ্তাই-বিলাইছড়ি সড়ক উন্নয়ন ৩৩৮ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

রাঙামাটির কাপ্তাই-বিলাইছড়ি সড়ক উন্নয়ন ৩৩৮ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

রাঙামাটি প্রতিনিধি : : পার্বত্য চট্টগ্রামে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ব্যাপক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করছে সরকার। এ লক্...বিস্তারিত


সেগুনের প্রভাবে বিবর্ণ সবুজ পাহাড়

সেগুনের প্রভাবে বিবর্ণ সবুজ পাহাড়

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : : সেগুনগাছের করাল গ্রাসে ধুসর হয়ে পড়ছে সবুজ পাহাড়। রাঙ্গামাটির সবুজ পাহাড়গুলোতে এভাবে সৃজন করা হয়ে...বিস্তারিত


নওগাঁয় কোদাল দিয়ে মামাকে জবাই; ২৪ ঘন্টায় রহস্য উন্মোচন

নওগাঁয় কোদাল দিয়ে মামাকে জবাই; ২৪ ঘন্টায় রহস্য উন্মোচন

সংবাদদাতা, নওগাঁ : : নওগাঁয় এক কৃষককে গলাকেটে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে রহস্য উন্মোচন করে...বিস্তারিত


নওগাঁ জেলায় নতুন আক্রান্ত ২৭ জন ঃ মোট আক্রান্ত ২০৫১ জন

নওগাঁ জেলায় নতুন আক্রান্ত ২৭ জন ঃ মোট আক্রান্ত ২০৫১ জন

সংবাদদাতা, নওগাঁ : : নওগাঁ জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ২৭ ব্যক্তির শরীরে নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ্য হয়েছেন ১৫ জ...বিস্তারিত


১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯শ ৫৯ পরিবার পাচ্ছে বিশেষ ভিজিএফ সহায়তা

১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯শ ৫৯ পরিবার পাচ্ছে বিশেষ ভিজিএফ সহায়তা

সংবাদদাতা, নওগাঁ : : আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলেক্ষ্য জেলার ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯শ ৫৯টি দরিদ্র পরিবারের মধ্যে বিশেষ ভিজিএফ...বিস্তারিত


আখাউড়ায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কর্মসূচীর আওতায় নগদ সহায়তা প্রদান। 

আখাউড়ায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কর্মসূচীর আওতায় নগদ সহায়তা প্রদান। 

আখাউড়া প্রতিনিধি : : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় নগদ অর্থ সহায়তা প...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


নবাব সিরাজউদ্দৌলার জন্ম উৎসবে বাংলার তিন গুণী সন্তান পেলেন সম্মাননা স্মারক

নবাব সিরাজউদ্দৌলার জন্ম উৎসবে বাংলার তিন গুণী সন্তান পেলেন সম্মাননা স্মারক

আমাদের বাংলা ডেস্ক : :                                                    - মুহাম্মদ শাহ্‌ আলম       ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর