চট্টগ্রাম   রবিবার, ১৩ জুন ২০২১  

শিরোনাম

পেঁয়াজের বীজ উৎপাদনে সফল ডুমুরিয়ার তড়িৎ বিশ্বাস

খুলনা প্রতিনিধি :    |    ০৫:৪৭ পিএম, ২০২১-০৫-২৯

পেঁয়াজের বীজ উৎপাদনে সফল ডুমুরিয়ার তড়িৎ বিশ্বাস

খুলনায় প্রথমবারের মতো পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন ও সংরক্ষণ করা হয়েছে। পরীক্ষামূলক এই পেঁয়াজের বীজ সংরক্ষণে সফল হয়েছেন ডুমুরিয়ার তরুণ কৃষক তড়িৎ বিশ্বাস। শুধু বীজ নয়, তিনি পেঁয়াজ ও পেঁয়াজের কালি উৎপাদন করে বিক্রি করেছেন। কৃষি বিভাগের সহায়তায় মাত্র ৫০ শতক জমিতে তিনি এই পেঁয়াজ বীজ উৎপাদন করেন। একই সঙ্গে সংরক্ষণ করা বীজ স্বল্প মুনাফায় স্থানীয় কৃষকদের মাঝে বিক্রি করবেন। স্বল্প খরচে পেঁয়াজের বীজ উৎপাদনে অধিক আয় করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন কৃষি কর্মকর্তারা।
কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, পেঁয়াজ বাংলাদেশের একটি অর্থকরী মসলা ফসল। দেশের প্রায় সব অঞ্চলেই পেঁয়াজের চাষ হয়। জলবায়ুর পরিবর্তন, বৈরী আবহাওয়া এবং বিভিন্ন রোগ ও পোকার আক্রমণ ইত্যাদির কারণে বাংলাদেশে পেঁয়াজের জাতীয় গড় ফলন বিশ্বব্যাপী গড় ফলন অপেক্ষা কম। বর্তমানে দেশে ১.৭৯ লক্ষ হেক্টর জমিতে ১৭.৩৮ লক্ষ মেট্রিক টন পেঁয়াজ উৎপাদন হচ্ছে (বিবিএস, ২০১৮)। আমাদের দেশে যে পেঁয়াজ উৎপন্ন হয় তা দিয়ে দেশের মোট চাহিদার মাত্রা ৫৭.১৪% মিটানো সম্ভব। ফলে দেশে পেঁয়াজের ঘাটতি রয়েছে। প্রতি বছর চাহিদা পূরণে পেঁয়াজ আমদানি করতে হয়। পেঁয়াজের বাল্বের ফলন বৃদ্ধির জন্য মানসম্পন্ন বীজ উৎপাদন গুরুত্বপূর্ণ। বর্তমানে আমাদের দেশে উন্নত জাত, সঠিক সময়ে ও সঠিক মাত্রায় সার, সেচ ও বালাই দমন ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে পেঁয়াজের বীজের ফলন বৃদ্ধিসহ মানসম্পন্ন বীজ উৎপাদন করা সম্ভব। সেই আলোকে খুলনায় পেঁয়াজের বীজ উৎপাদনে ঝোঁক দিয়েছে কৃষি বিভাগ। এবারই প্রথম খুলনায় পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন করা হয়েছে। তাতে সফলতাও এসেছে।
গত বছর পেঁয়াজের বীজের দাম বেশি ছিল। ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের কারণে এ বছরও দুই হাজার টাকার পেঁয়াজের বীজ ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা হয়। কৃষক যদি নিজেরাই বীজ তৈরি করে তাহলে সিন্ডিকেট ভাঙবে এমনটা ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
ডুমুরিয়ার তড়িৎ বিশ্বাস বলেন, কৃষি অফিস থেকে পেঁয়াজের বাল্ব দিয়েছিল। বর্গা নিয়ে ৫০ শতক জমিতে ১৩ মন বাল্ব লাগিয়েছিলাম। সেখান থেকে ২৩ মণ পেঁয়াজ এবং ২৫ কেজি বীজ উৎপাদন হয়েছে। এছাড়া পেঁয়াজের কালি ৩ হাজার টাকার মতো বিক্রি করেছি। বীজগুলো সংরক্ষণ করা হচ্ছে। কৃষি অফিসের সহায়তায় মওসুমের সময়ে বীজগুলো বিক্রি করা হবে। কৃষি অফিস থেকে বাল্ব দেওয়া হয়েছিল। আর আমি শ্রম ও পরিচর্যা করেছি। তিন মাস পরিচর্যা করে ফসল ঘরে তুলেছি। 
তরুণ এই কৃষক বলেন, আমি এবার প্রথম পেঁয়াজের চাষ করেছি। বীজও খুলনায় প্রথম। চাষ করে খুব ভালো লেগেছে। আগামী বছর বীজ দিয়ে পেঁয়াজ চাষ করার ইচ্ছা রয়েছে।
ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, পেঁয়াজ একটি উচ্চমূল্যের ফসল। বীজের দাম অনেক বেশি ছিল। এ বছর ৬ হাজার টাকা কেজি পর্যন্ত দাম হয়েছিল। যে কারণে দরিদ্র কৃষকদের পক্ষে বীজ ক্রয় করে পেঁয়াজ উৎপাদন করা সম্ভব ছিল না। এ কারণে আমরা কৃষক পর্যায়ে ডাল, তেল, মসলার উন্নতমানের বীজ সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্পের আওতায় ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তা তড়িৎ বিশ্বাসকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় এবং পেঁয়াজের বীজ ও সার প্রদান করা হয়। প্রথমবারের মতো খুলনায় পেঁয়াজের বীজ সংরক্ষণ করা হয়েছে। ৩০ কেজির মতো বীজ হয়েছিল। কিন্তু শোকানোর কারণে কমে ২৫ কেজির মতো রয়েছে তড়িৎ বিশ্বাসের কাছে। এটি আমাদের জন্য একটি বড় অর্জন। তার দেখাদেখি আগামীতে আরও কৃষক উৎসাহিত হবে। পেঁয়াজের উৎপাদন বাড়বে।
তিনি আরও বলেন, এক কেজি পেঁয়াজের বীজ সংরক্ষণ করবে এবং বাকী বীজ বিক্রি করে দিবে। এক কেজি বীজে ৫০ থেকে ৫২ শতকে লাগানো যাবে। নভেম্বর মাসে পেঁয়াজ লাগানো হয় এবং এপ্রিলের শেষ পর্যায়ে উঠানো হয়। ৫০ শতক জমিতে পেঁয়াজ, কালি ও বীজ উৎপাদন এবং সংরক্ষণে ২৫-৩০ হাজার টাকা খরচ করে এক লাখ টাকা আয় করা সম্ভব বলে তিনি জানিয়েছেন।
খুলনা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো. হাফিজুর রহমান বলেন, খুলনার মাটি পেঁয়াজ উৎপাদনের জন্য উপযুক্ত। অল্প-স্বল্প পেঁয়াজ উৎপাদন হয়। এবারই প্রথম পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন ও সংরক্ষণ করা হয়েছে। এক বিঘা জমিতে বারি-১ জাতের বাল্ব লাগিয়ে পেঁয়াজের বীজ উৎপান ও সংরক্ষণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ফরিদপুর থেকে পেঁয়াজের বীজ এনে চাষাবাদ করা হতো। খুলনায় এবার ২৫ কেজি পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন করা সম্ভব হয়েছে। এই বীজ কৃষক তড়িৎ বিশ্বাসের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে স্থানীয় চাষিদের মাঝে।

রিটেলেড নিউজ

বর্ষা মওসুমে খুলনার উপকুলের বেড়িবাঁধে আশ্রয় নেওয়া মানুষগুলোর মানবেতর জীবন

বর্ষা মওসুমে খুলনার উপকুলের বেড়িবাঁধে আশ্রয় নেওয়া মানুষগুলোর মানবেতর জীবন

মো. আনিসুজ্জামান, খুলনা : :  ‘ইয়াসে ঘর বাড়ি হারিয়ে সরকারি পুকুরপাড়ে ঝুঁপড়ি ঘরে বাস করছি। এখানে আসার পরে খেয়ে না খেয়ে কষ্ট ক...বিস্তারিত


বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নবনিযুক্ত তথ্য ও সম্প্রচার সচিবের শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নবনিযুক্ত তথ্য ও সম্প্রচার সচিবের শ্রদ্ধা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : : গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছ...বিস্তারিত


সুন্দরগঞ্জে ৬ জুয়াড়ি গ্রেপ্তার

সুন্দরগঞ্জে ৬ জুয়াড়ি গ্রেপ্তার

সংবাদদাতা, গাইবান্ধা :: : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৬ জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করেছে। থানা সূত্রে জানা যায়...বিস্তারিত


যশোরে প্রেসক্লাব  নির্বাচনে ১৫ পদে ২৭ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

যশোরে প্রেসক্লাব  নির্বাচনে ১৫ পদে ২৭ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

সংবাদদাতা, যশোর : :   প্রেসক্লাব যশোরে দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ১৫টি পদের বিপরীতে ২৭ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র শ...বিস্তারিত


যশোরে করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় তিনজনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৩৫

যশোরে করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় তিনজনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৩৫

সংবাদদাতা, যশোর : :   যশোরে করোনা শনাক্তের হার উদ্বেগজনক। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। ১২ জুন শন...বিস্তারিত


যশোরের  ধর্ষণের অভিযোগে  আটক ১

যশোরের  ধর্ষণের অভিযোগে  আটক ১

সংবাদদাতা, যশোর : :   যশোর অভয়নগর উপজেলার এক ভাড়াটিয়ার স্ত্রীকে জোর করে ধর্ষণের অভিযোগে বিটু আহম্মেদ নামে এক লম্পট...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


নবাব সিরাজউদ্দৌলার জন্ম উৎসবে বাংলার তিন গুণী সন্তান পেলেন সম্মাননা স্মারক

নবাব সিরাজউদ্দৌলার জন্ম উৎসবে বাংলার তিন গুণী সন্তান পেলেন সম্মাননা স্মারক

আমাদের বাংলা ডেস্ক : :                                                    - মুহাম্মদ শাহ্‌ আলম       ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর