চট্টগ্রাম   বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১  

শিরোনাম

জীবনহানীর আশঙ্কা! খুলনা জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের ভবন ঝুঁকিপূর্ণ

খুলনা প্রতিনিধি :    |    ০৫:৪৭ পিএম, ২০২১-০৬-২০

জীবনহানীর আশঙ্কা! খুলনা জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের ভবন ঝুঁকিপূর্ণ

মো. আনিসুজ্জামান ::
খুলনা জেলা রেজিস্টার কার্যালয়ের ভবনটি ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। প্রতিনিয়ত ভেঙে ভেঙে পড়ছে ছাদের পলেস্তারা। নিরাপত্তার জন্য ওপরে টানানো হয়েছে নেটের জাল। ধসে পড়ছে দেয়ালের পলেস্তারাও। দরজা-জানালাও অনেকটা জরাজীর্ণ। দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে এমন বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে খুলনা জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের ভবন। কিন্তু এরপরও ঝুঁকিপূর্ণ ওই ভবনে চলছে দাপ্তরিক কাজ-কর্ম। খুব দ্রুত সংস্কারের উদ্যোগ না নিলে ভবনটিতে প্রাণহানিসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র নষ্ট হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।
কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জমি রেজিস্ট্রেশন ও আনুষঙ্গিক কাজের জন্য নগরীর কেডি ঘোষ রোডে নগর ভবনের পাশে স্বাধীনতার আগে বহু কক্ষবিশিষ্ট খুলনা জেলা ভূমি রেজিস্ট্রার কার্যালয় নির্মাণ করা হয়।  দৈনন্দিন সেবা প্রদানে কার্যালয়ে কর্মরত রয়েছেন দেড় শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী। এছাড়া ভূমি সংক্রান্ত সমস্যা ও নানা প্রয়োজনে প্রতিদিন অসংখ্য লোক আসা-যাওয়া করেন এই অফিসে।
ভবনে গিয়ে দেখা যায়, দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে ভবনটির বেহাল দশা। প্রতিনিয়ত খসে পড়ছে ছাদ ও দেয়ালের পলেস্তারা। জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে জানালা-দরজা। ভেঙে পড়া ওই ছাদ থেকে রক্ষা পেতে টানানো হয়েছে নেটের জাল। এ অবস্থায় ঝুঁকিপূর্ণ ওই ভবনে চলছে অফিসটির দাপ্তরিক কাজ-কর্ম। ফলে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ অফিসে আসা সেবা প্রত্যাশী জনসাধারণ।
খুলনা জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের একাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী জানান, ছাদের বেশির ভাগ জায়গায় রড দেখা যায়। নেটের জাল দিয়ে কাজের পরিবেশ তৈরি চেষ্টা করা হলেও সেটি সম্ভব হচ্ছে না। জমাট বাঁধা কংক্রিট নেটের জাল ছিঁড়ে পড়ছে। এ অবস্থায় ভবনের মধ্যে কাজ করা মুশকিল হয়ে পড়েছে। ভয়ে ভয়ে দিনের কাজ কোনোমতে শেষ করা হচ্ছে।
খুলনা জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের রেজিস্ট্রার দীপক কুমার সরকার বলেন, ‘ভবনে দেড় লাখ বালাম বাইসহ নানা নথিপত্র ও আসবাব রয়েছে। আর দৈনন্দিন কাজকর্মের জন্য এত বড় ভবনও অন্য কোথাও পাওয়া যাচ্ছে না। ‘ফলে বাধ্য হয়ে এই ভবনে কাজ চালাতে হচ্ছে। তবে অন্য ভবনে অফিস ভাড়া নেয়ারও চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু এখনও ভাড়ার টাকার প্রশাসনিক অনুমোদন মেলেনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘পুরনো ভবন ভেঙে অচিরেই চারতলা বিশিষ্ট নতুন ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। গণপূর্ত বিভাগ ভবনের নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করবে।#

রিটেলেড নিউজ

যশোরে র‌্যাব-৬ এর হাতে ৪০লিটার চোলাই মদসহ বিক্রেতা গ্রেফতার

যশোরে র‌্যাব-৬ এর হাতে ৪০লিটার চোলাই মদসহ বিক্রেতা গ্রেফতার

সংবাদদাতা, যশোর : : র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের সদস্যরা সোমবার রাতে যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া সুপারী পট্টি বাজারস...বিস্তারিত


চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে এফবিসিসিআই’র  চিকিৎসা সামগ্রী  প্রদান

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে এফবিসিসিআই’র  চিকিৎসা সামগ্রী  প্রদান

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : : আব্দুল্লাহ আল মামুন : চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আধুনিক সদর হাসপাতালে ৬টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, ১টি হাইফ্...বিস্তারিত


ভারতীয় চোরাই মোবাইল ধ্বংস

ভারতীয় চোরাই মোবাইল ধ্বংস

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে বিভিন্ন সময়ে ৫৯ বিজিবি’র আটককৃত প্রায় ৩২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার মুল্যের...বিস্তারিত


রাজবাড়ীতে অটোরিকসার চাপায় এক শিশু নিহত, চালক খায়রুল আটক

রাজবাড়ীতে অটোরিকসার চাপায় এক শিশু নিহত, চালক খায়রুল আটক

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : : রাজবাড়ীতে অটোরিকশা চাপায় নুসরাত প্রামাণিক (৭) নামে এক শিশু ঘটনাস্থ‌লেই  নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আ‌...বিস্তারিত


রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে দু,টি ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারকে ৬০ জরিমানা

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে দু,টি ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারকে ৬০ জরিমানা

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে দু্ই‌টি ক্লি‌নিক‌কে অ‌ভিযান চা‌লি‌য়ে‌ছে জেলা ভোক্তা অ‌ধিকার...বিস্তারিত


পাকুন্দিয়া প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ

পাকুন্দিয়া প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : : কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া প্রেস ক্লাবের নব-গঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদ দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে। মঙ্গল...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- :   নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- পলাশী একটি বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাস। এই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর