চট্টগ্রাম   মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১  

শিরোনাম

অসম-মিজোরাম সীমান্ত সমস্যা, ভারত সরকারের বলিষ্ঠ  হস্তক্ষেপ চায়  মানবাধিকার সংস্থা

মিলন লস্কর, শিলচর (ভারত) :    |    ০২:১৪ পিএম, ২০২১-০৮-০২

অসম-মিজোরাম সীমান্ত সমস্যা, ভারত সরকারের বলিষ্ঠ  হস্তক্ষেপ চায়  মানবাধিকার সংস্থা

লায়লাপুর সীমান্তে যেতে পারলনা মানবাধিকার সংস্থার প্রতিনিধিদল। অসম- মিজোরাম সীমান্তে গোলাগুলি ও মিজো পুলিশ ও জনতার নির্যাতনের শিকার হয়ে গৃহহারা অসমের নাগরিকদের খোঁজখবর নিতে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা- ভারত-র সভাপতি জ্ঞানেন্দ্র প্রসাদ শুক্লার নির্দেশে অসম ও কাছাড় জেলা কমিটির এক প্রতিনিধিদল সোমবার লায়লাপুর যাবার পথে ধলাই পুলিশ তাদের আটকে দেয় । পুলিশ সুপারের মৌখিক অনুমতি থাকলেও উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাদের আটকানো হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। প্রতিনিধিদল ধলাই থেকে ফিরে এসে সোনাবাড়িঘাটে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলেন। 
প্রতিনিধি দলের নেতা অরুণ দত্ত মজুমদার জানান, গত ২৬ জুলাই অসম- মিজোরাম সীমান্তে গোলাগুলি ও নির্যাতনের ফলে বাস্তুহারা মানুষের অবস্থার সরেজমিন পরিদর্শন করে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে প্রতিবেদন জমা দিতে সংস্থার কেন্দ্রীয় সভাপতির নির্দেশে তারা লায়লাপুর রওয়ানা হয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাদের গতিরোধ করায় তারা ফিরে আসেন। তবে শীঘ্রই পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে তারা পুনরায় সীমান্তে যাবেন। অরুণবাবু সীমান্ত সমস্যা ও গোলাগুলির জেরে সীমান্তে বসবাসরত গৃহহারা ও ক্ষতিগ্রস্ত অসমের বাসিন্দাদের  পুনর্বাসন ও নিরাপত্তার ব্যাপারে কেন্দ্রের বলিষ্ঠ হস্তক্ষেপ কামনা করেন। তিনি বলেন,বিষয়টি নিয়ে অসমের মুখ্যমন্ত্রীর পদক্ষেপে তারা সন্তোষ্ট হলেও কেন্দ্রীয় সরকার এখন পর্যন্ত যে ব্যবস্থা নিয়েছে তা যথেষ্ট নয়। তিনি আরও বলেন, আমরা মিজোরাম সীমান্তে নীরিহ মিজো জনসাধারণেরও নিরাপত্তা চাই। অসম সীমান্তে বাস্তহারা জনগনের মধ্যে রয়েছেন বাঙ্গালি হিম্দু মুসলিম সহ উপজাতি সম্প্রদায়। এরা সবাই  ভারতীয় নাগরিক। অরুণবাবু আরও বলেন,আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা চায় অসম - মিজোরাম সমস্যার স্থায়ী সমাধান। 
প্রতিনিধিদলের সদস্য আইনজীবী তুহিনা বিশ্বাস বলেন,গত ২৬ জুলাইর নৃশংস ঘটনার পর অসম সরকার যেসকল ব্যবস্থা এখন পর্যন্ত নিয়েছে তাতে আমাদের সমর্থন রয়েছে তবে সীমান্তে মিজো পুলিশ ও একাংশ নাগরিকদের নৃশংস কান্ড ভয়ভীতিতে সীমান্তে বসবাসকারী অসমের যেসকল নাগরিক গৃহহারা হয়েছেন তা মানবাধিকার লঙ্ঘন ছাড়া আর কিছু নয়। জনগন যাতে বঞ্চিত না হন তার আইনী ও স্থায়ী সমাধান চাই আমরা। প্রাসঙ্গিক বক্তব্য রাখেন, সংস্থার জেলার ভারপ্রাপ্ত  সভাপতি সুধাংশু দাস,জেলা বার সংস্থার সম্পাদক আইনজীবী আব্দুল হাই লস্কর, ইলতুত রহমান, জেলা সম্পাদিকা মিতালি দাস প্রমুখ। প্রতিনিধি দলে ছিলেন রাজ্য সভাপতি আক্তার হোসেন লস্কর, কৃষ্ণ কংশবনিক, রেহানা রাজ বড়ভুইয়া, অসীম কুমার শ্যাম প্রমুখ। 

রিটেলেড নিউজ

মায়ের রক্তে ভাসছে ঘর, ছেলেকে খুঁজছে পুলিশ!

মায়ের রক্তে ভাসছে ঘর, ছেলেকে খুঁজছে পুলিশ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :   স্বপ্না চন্দ। পেশায় নার্স। তার স্বামী পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে অন্য নারীর সঙ্গে থাকেন। তাই শাশু...বিস্তারিত


মৃত্যুর পরে এমপি হলেন আনসাম

মৃত্যুর পরে এমপি হলেন আনসাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :   ইরাকের খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের নেত্রী আনসাম ম্যানুয়েল ইস্কান্দার ২৪ আগস্ট মহামারি করোনায় আক্...বিস্তারিত


 প্রকাশ্য শাস্তিতে তালেবানের ‘না’

প্রকাশ্য শাস্তিতে তালেবানের ‘না’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :   আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: প্রকাশ্য শাস্তিতে তালেবানের ‘না’ মরদেহ ক্রেনে ঝুলিয়ে ২৫ সেপ্টেম্বর শ...বিস্তারিত


সৌদির বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা, তিন বাংলাদেশিসহ আহত ১০

সৌদির বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা, তিন বাংলাদেশিসহ আহত ১০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :   সৌদি আরবের জাজান শহরের বাদশাহ আবদুল্লাহ বিমানবন্দরে ড্রোন হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে তিন বাংলাদ...বিস্তারিত


সৌদিআরবে স্বর্ণ উৎপাদনের পরিমাণ বাড়ছে 

সৌদিআরবে স্বর্ণ উৎপাদনের পরিমাণ বাড়ছে 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :   সৌদি আরবের স্বর্ণ খনিতে প্রচুর স্বর্ণ রিজার্ভ রয়েছে যার মূল্য প্রায় ১.৩ ট্রিলিয়ন ডলারে পৌঁছ...বিস্তারিত


সৌদিআরবে প্রবাসীরা অন্যত্র কাজ করলে জেল এবং নিজ দেশে ফেরতের ঘোষণা 

সৌদিআরবে প্রবাসীরা অন্যত্র কাজ করলে জেল এবং নিজ দেশে ফেরতের ঘোষণা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :     সৌদি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে সৌদি নিয়োগকর্তা ব্যক্তিগত সুবিধার জন্য বা অর্থের বিনিময়ে তার ক...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- :   নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- পলাশী একটি বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাস। এই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর