চট্টগ্রাম   শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১  

শিরোনাম

সুন্দরবনে পর্যটক নিষিদ্ধের সুযোগে বেপরোয়া দুর্বৃত্তরা

এহতেশামুল হক শাওন, খুলনা :    |    ০৫:৫১ পিএম, ২০২০-০৯-১৯

সুন্দরবনে পর্যটক নিষিদ্ধের সুযোগে বেপরোয়া দুর্বৃত্তরা


করোনা ভাইরাস সংক্রমন এড়াতে সুন্দরবনে সব ধরণের পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ রয়েছে দীর্ঘ প্রায় ছয় মাস ধরে। এতে একদিকে সরকার রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে, অপরদিকে পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে জড়িতরা আর্থিক সংকটে পড়েছে। সরকার গত ১৯ মার্চ থেকে সুন্দরবনে পর্যটকদের সমাবেশকে নিষিদ্ধ করে। 
এদিকে, বিশ্বঐতিহ্য এ বনে ভ্রমণ বন্ধ থাকার সুযোগে দুর্বৃত্তরা অবাধে হরিণসহ বন্যপশু হত্যা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া উজাড় হচ্ছে ‘কর্তননিষিদ্ধ’ মূল্যবান গাছ এবং বিষ দিয়ে মারা হচ্ছে হাজার হাজার টন মাছ। এরফলে পরিবেশ বিপর্যয়ের মুখে পড়ছে।  
পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দেওয়ার দাবিতে বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) খুলনা বন ভবনের সামনে ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোশিয়েশন অব সুন্দরবন (টিওএএস) মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।  তারা বলেন, সুন্দরবন খুলে দিলে অপরাধীদের তৎপরতা কমে আসবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, পশ্চিম বন বিভাগের খুলনা ও সাতক্ষীরা রেঞ্জের নীল কমল, পাথকষ্টা, গেওয়াখালির অংশ বিশেষ, নোটাবেকি, মান্দার বাড়ি, পুস্পকাটিসহ বনের অন্য সকল অভয়ারণ্য এলাকায় অসাধু জেলেরা মাছ শিকার করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
সূত্র জানান, নীলকমল অভয়ারণ্যের শিসখালী ও বালি নদীর আশপাশের এলাকা, চান্দাবুনি ও বুন্দো নদীসহ আশপাশের খালে মৎস্য বাবসায়ি, জহির মেম্বর, আব্দুল মাজেল, মফিজুল, এছাক ও মালেকের জেলেরা বছরের প্রায় মাছ মাছ শিকার করে থাকে। এছাড়া নোটাবেকি, পুস্পকাটি অভয়ারণ্যের নান্দী ও জলঘাটাবন এলাকার নদী-খালে মৎস্য ব্যবসায়ি ও রজব আলী, কামরুল গাজী, মহিদুলসহ কয়রা ও শ্যমনগরের শতাধিক জেলে  মাছ শিকার করছেন। 
জেলেরা জানায়, গহীন সুন্দরবনের অভয়ারণ্য এলাকা থেকে মাছ ধরে নৌাকা যোগে লোকালয়ে পৌঁছাতে পথে ঘাটে সবখানে ম্যানেজ করে চলতে  হয়। বড় অফিসারদের স্পীড বোটের সামনে পড়লে আর রেহাই পাওয়া যায় না। এছাড়া অভয়ারণ্যে মাছ শিকারের  সুযোগ করে দেওয়ায় অভয়ারণ্য এলাকার বনরক্ষীরা জেলে নৌকাপ্রতি ১ হাজার টাকা করে নেয়।
এর বাইরেও ‘কর্তননিষিদ্ধ’ গাছ কেটে পাচার এবং হরিণসহ বন্যপ্রাণি হত্যার অভিযোগও রয়েছে। 
জানতে চাইলে পশ্চিম সুন্দরবনের খুলনা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক মোঃ আবু সালেহ বলেন, অভয়ারণ্য এলাকায় প্রবেশ একেবারে নিষিদ্ধ। বনবিভাগের স্মার্ট পেট্রোলিং টিম নিয়মিত টহল করছে। অভয়ারণ্যের নদী-খালে মাছ শিকার করা অসাধু জেলেদের পাকড়াও করতে অভিযান চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি। 
এ বিষয়ে ‘ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোশিয়েশন অব সুন্দরবন’ (টিওএএস)-এর যুগ্ম-সম্পাদক মাযহারুল কচি বলেন, ‘পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দেওয়ার দাবিতে বন সংরক্ষকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি।’ তিনি বলেন, ‘এর আগে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দিতে জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছিলাম। জেলা প্রশাসন স্বাস্থ্যবিধি সম্পূর্ণভাবে অনুসরণসহ কয়েকটি শর্ত দিয়ে ট্যুরের অনুমোদন দেয়। কিন্তু বন বিভাগ থেকে বলা হচ্ছে, সংসদীয় কমিটির সুপারিশে তারা এ মুহূর্তে কোনো ট্যুরের অনুমোদন দিতে পারছেন না। ’
মাযহারুল কচি আরও বলেন, ‘সুন্দরবনে পর্যটকদের ঢোকা বন্ধ থাকায় একদিকে ট্যুর সংশ্লিষ্ট কয়েক হাজার মানুষ জীবিকাহীন হয়ে পড়েছেন, অন্যদিকে সরকার হারাচ্ছে বিপুল রাজস্ব। আর এরই সুযোগে অপরাধীরা উজাড় করে দিচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। শিকার করছে হরিণ।’ তিনি আরও বলেন, ‘পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দিলে এখানে অপরাধ অনেক কমে যাবে। বনরক্ষার স্বার্থেই পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দেওয়া উচিত।’
ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবন (টোয়াস)’র সভাপতি মো. মঈনুল ইসলাম জমাদ্দার বলেন, সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকায় পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে জড়িতরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। গত কয়েক মাসে তাদের ২০ কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি হয়েছে। অবিলম্বে দাবি আদায় না হলে আগামীতে খুলনা-ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা দেয়া হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। 
এ বিষয়ে খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক মো. মঈনউদ্দিন বলেন, ‘সুন্দরবনের পরিবেশের স্বার্থে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সুপারিশে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সুন্দরবনে আবার কবে পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হবে, সে বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারবো না। তবে আগামী মাসে এই বিষয়ে মন্ত্রণালয় থেকে একটি সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলেও উল্লেখ করেন এই বন কর্মকর্তা। 
 

রিটেলেড নিউজ

কুমিল্লার ঘটনায় গ্রেফতার ৪১

কুমিল্লার ঘটনায় গ্রেফতার ৪১

কুমিল্লা প্রতিনিধি : :   কুমিল্লায় পূজামণ্ডপ ঘিরে উত্তেজনা ও সংঘর্ষের ঘটনায় চার মামলায় এ পর্যন্ত ৪১ জনকে গ্রেফতার করে...বিস্তারিত


বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে ক্যাম্পাসে টিকা পাচ্ছে জবি শিক্ষার্থীরা

বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে ক্যাম্পাসে টিকা পাচ্ছে জবি শিক্ষার্থীরা

জবি প্রতিনিধি :   জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবির)  আধুনিক মেডিকেল সেন্টার থেকে আগামী ২১শে অক্টোবর থেকে টিকা বুথ ব...বিস্তারিত


বিশ্বের সর্বোচ্চ  তাপমাত্রার তালিকার শীর্ষে সৌদি আরবের আরাফাত

বিশ্বের সর্বোচ্চ  তাপমাত্রার তালিকার শীর্ষে সৌদি আরবের আরাফাত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : :     আল-কাসিম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন জলবায়ু শিক্ষক ডা: আব্দুল্লাহ আল-মিসনাদের মতে, বিশ্বের ...বিস্তারিত


পাকিস্তানিরা বিতারিত হলেও তাদের দোসরা রয়ে গেছে- মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী 

পাকিস্তানিরা বিতারিত হলেও তাদের দোসরা রয়ে গেছে- মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী 

সংবাদদাতা, পঞ্চগড় : :   মুক্তিযোদ্ধা বিষয়মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ১৬ই ডিসেম্বর দেশ পরিপূর্ণ ভাবে স্বাধীন হয়...বিস্তারিত


গোবিন্দগঞ্জে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্যাণ কেন্দ্রের উদ্বোধন

গোবিন্দগঞ্জে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্যাণ কেন্দ্রের উদ্বোধন

গোবিন্দগঞ্জ(গাইবান্ধা)প্রতিনিধি : :    গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নে পানাউল্ল্যাহ স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্যাণ ...বিস্তারিত


লাভ বাংলাদেশ সদর উপজেলা কমিটিতে রুবেল সভাপতি ও রনি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত!

লাভ বাংলাদেশ সদর উপজেলা কমিটিতে রুবেল সভাপতি ও রনি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত!

কক্সবাজার প্রতিনিধি : :   লাভ বাংলাদেশ কক্সবাজার সদর উপজেলা শাখা কর্তৃক আয়োজিত দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে লাভ বাংলাদেশ সদ...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- :   নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- পলাশী একটি বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাস। এই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর