চট্টগ্রাম   শুক্রবার, ৭ মে ২০২১  

শিরোনাম

সুন্দরবনে পর্যটক নিষিদ্ধের সুযোগে বেপরোয়া দুর্বৃত্তরা

এহতেশামুল হক শাওন, খুলনা :    |    ০৫:৫১ পিএম, ২০২০-০৯-১৯

সুন্দরবনে পর্যটক নিষিদ্ধের সুযোগে বেপরোয়া দুর্বৃত্তরা


করোনা ভাইরাস সংক্রমন এড়াতে সুন্দরবনে সব ধরণের পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ রয়েছে দীর্ঘ প্রায় ছয় মাস ধরে। এতে একদিকে সরকার রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে, অপরদিকে পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে জড়িতরা আর্থিক সংকটে পড়েছে। সরকার গত ১৯ মার্চ থেকে সুন্দরবনে পর্যটকদের সমাবেশকে নিষিদ্ধ করে। 
এদিকে, বিশ্বঐতিহ্য এ বনে ভ্রমণ বন্ধ থাকার সুযোগে দুর্বৃত্তরা অবাধে হরিণসহ বন্যপশু হত্যা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া উজাড় হচ্ছে ‘কর্তননিষিদ্ধ’ মূল্যবান গাছ এবং বিষ দিয়ে মারা হচ্ছে হাজার হাজার টন মাছ। এরফলে পরিবেশ বিপর্যয়ের মুখে পড়ছে।  
পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দেওয়ার দাবিতে বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) খুলনা বন ভবনের সামনে ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোশিয়েশন অব সুন্দরবন (টিওএএস) মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।  তারা বলেন, সুন্দরবন খুলে দিলে অপরাধীদের তৎপরতা কমে আসবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, পশ্চিম বন বিভাগের খুলনা ও সাতক্ষীরা রেঞ্জের নীল কমল, পাথকষ্টা, গেওয়াখালির অংশ বিশেষ, নোটাবেকি, মান্দার বাড়ি, পুস্পকাটিসহ বনের অন্য সকল অভয়ারণ্য এলাকায় অসাধু জেলেরা মাছ শিকার করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
সূত্র জানান, নীলকমল অভয়ারণ্যের শিসখালী ও বালি নদীর আশপাশের এলাকা, চান্দাবুনি ও বুন্দো নদীসহ আশপাশের খালে মৎস্য বাবসায়ি, জহির মেম্বর, আব্দুল মাজেল, মফিজুল, এছাক ও মালেকের জেলেরা বছরের প্রায় মাছ মাছ শিকার করে থাকে। এছাড়া নোটাবেকি, পুস্পকাটি অভয়ারণ্যের নান্দী ও জলঘাটাবন এলাকার নদী-খালে মৎস্য ব্যবসায়ি ও রজব আলী, কামরুল গাজী, মহিদুলসহ কয়রা ও শ্যমনগরের শতাধিক জেলে  মাছ শিকার করছেন। 
জেলেরা জানায়, গহীন সুন্দরবনের অভয়ারণ্য এলাকা থেকে মাছ ধরে নৌাকা যোগে লোকালয়ে পৌঁছাতে পথে ঘাটে সবখানে ম্যানেজ করে চলতে  হয়। বড় অফিসারদের স্পীড বোটের সামনে পড়লে আর রেহাই পাওয়া যায় না। এছাড়া অভয়ারণ্যে মাছ শিকারের  সুযোগ করে দেওয়ায় অভয়ারণ্য এলাকার বনরক্ষীরা জেলে নৌকাপ্রতি ১ হাজার টাকা করে নেয়।
এর বাইরেও ‘কর্তননিষিদ্ধ’ গাছ কেটে পাচার এবং হরিণসহ বন্যপ্রাণি হত্যার অভিযোগও রয়েছে। 
জানতে চাইলে পশ্চিম সুন্দরবনের খুলনা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক মোঃ আবু সালেহ বলেন, অভয়ারণ্য এলাকায় প্রবেশ একেবারে নিষিদ্ধ। বনবিভাগের স্মার্ট পেট্রোলিং টিম নিয়মিত টহল করছে। অভয়ারণ্যের নদী-খালে মাছ শিকার করা অসাধু জেলেদের পাকড়াও করতে অভিযান চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি। 
এ বিষয়ে ‘ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোশিয়েশন অব সুন্দরবন’ (টিওএএস)-এর যুগ্ম-সম্পাদক মাযহারুল কচি বলেন, ‘পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দেওয়ার দাবিতে বন সংরক্ষকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি।’ তিনি বলেন, ‘এর আগে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দিতে জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছিলাম। জেলা প্রশাসন স্বাস্থ্যবিধি সম্পূর্ণভাবে অনুসরণসহ কয়েকটি শর্ত দিয়ে ট্যুরের অনুমোদন দেয়। কিন্তু বন বিভাগ থেকে বলা হচ্ছে, সংসদীয় কমিটির সুপারিশে তারা এ মুহূর্তে কোনো ট্যুরের অনুমোদন দিতে পারছেন না। ’
মাযহারুল কচি আরও বলেন, ‘সুন্দরবনে পর্যটকদের ঢোকা বন্ধ থাকায় একদিকে ট্যুর সংশ্লিষ্ট কয়েক হাজার মানুষ জীবিকাহীন হয়ে পড়েছেন, অন্যদিকে সরকার হারাচ্ছে বিপুল রাজস্ব। আর এরই সুযোগে অপরাধীরা উজাড় করে দিচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। শিকার করছে হরিণ।’ তিনি আরও বলেন, ‘পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দিলে এখানে অপরাধ অনেক কমে যাবে। বনরক্ষার স্বার্থেই পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খুলে দেওয়া উচিত।’
ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবন (টোয়াস)’র সভাপতি মো. মঈনুল ইসলাম জমাদ্দার বলেন, সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকায় পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে জড়িতরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। গত কয়েক মাসে তাদের ২০ কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি হয়েছে। অবিলম্বে দাবি আদায় না হলে আগামীতে খুলনা-ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা দেয়া হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। 
এ বিষয়ে খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক মো. মঈনউদ্দিন বলেন, ‘সুন্দরবনের পরিবেশের স্বার্থে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সুপারিশে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সুন্দরবনে আবার কবে পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হবে, সে বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারবো না। তবে আগামী মাসে এই বিষয়ে মন্ত্রণালয় থেকে একটি সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলেও উল্লেখ করেন এই বন কর্মকর্তা। 
 

রিটেলেড নিউজ

রাঙামাটির কাপ্তাই-বিলাইছড়ি সড়ক উন্নয়ন ৩৩৮ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

রাঙামাটির কাপ্তাই-বিলাইছড়ি সড়ক উন্নয়ন ৩৩৮ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

রাঙামাটি প্রতিনিধি : : পার্বত্য চট্টগ্রামে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ব্যাপক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করছে সরকার। এ লক্...বিস্তারিত


সেগুনের প্রভাবে বিবর্ণ সবুজ পাহাড়

সেগুনের প্রভাবে বিবর্ণ সবুজ পাহাড়

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : : সেগুনগাছের করাল গ্রাসে ধুসর হয়ে পড়ছে সবুজ পাহাড়। রাঙ্গামাটির সবুজ পাহাড়গুলোতে এভাবে সৃজন করা হয়ে...বিস্তারিত


নওগাঁয় কোদাল দিয়ে মামাকে জবাই; ২৪ ঘন্টায় রহস্য উন্মোচন

নওগাঁয় কোদাল দিয়ে মামাকে জবাই; ২৪ ঘন্টায় রহস্য উন্মোচন

সংবাদদাতা, নওগাঁ : : নওগাঁয় এক কৃষককে গলাকেটে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে রহস্য উন্মোচন করে...বিস্তারিত


নওগাঁ জেলায় নতুন আক্রান্ত ২৭ জন ঃ মোট আক্রান্ত ২০৫১ জন

নওগাঁ জেলায় নতুন আক্রান্ত ২৭ জন ঃ মোট আক্রান্ত ২০৫১ জন

সংবাদদাতা, নওগাঁ : : নওগাঁ জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ২৭ ব্যক্তির শরীরে নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ্য হয়েছেন ১৫ জ...বিস্তারিত


১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯শ ৫৯ পরিবার পাচ্ছে বিশেষ ভিজিএফ সহায়তা

১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯শ ৫৯ পরিবার পাচ্ছে বিশেষ ভিজিএফ সহায়তা

সংবাদদাতা, নওগাঁ : : আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলেক্ষ্য জেলার ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯শ ৫৯টি দরিদ্র পরিবারের মধ্যে বিশেষ ভিজিএফ...বিস্তারিত


আখাউড়ায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কর্মসূচীর আওতায় নগদ সহায়তা প্রদান। 

আখাউড়ায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কর্মসূচীর আওতায় নগদ সহায়তা প্রদান। 

আখাউড়া প্রতিনিধি : : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় নগদ অর্থ সহায়তা প...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


নবাব সিরাজউদ্দৌলার জন্ম উৎসবে বাংলার তিন গুণী সন্তান পেলেন সম্মাননা স্মারক

নবাব সিরাজউদ্দৌলার জন্ম উৎসবে বাংলার তিন গুণী সন্তান পেলেন সম্মাননা স্মারক

আমাদের বাংলা ডেস্ক : :                                                    - মুহাম্মদ শাহ্‌ আলম       ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর