চট্টগ্রাম   শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১  

শিরোনাম

নবীনগরে মীমাংসার পরেও প্রতিপক্ষের গ্রামে প্রবেশ নিয়ে ধুম্রজাল  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি    |    ০৪:০৩ পিএম, ২০২০-১২-২০

নবীনগরে মীমাংসার পরেও প্রতিপক্ষের গ্রামে প্রবেশ নিয়ে ধুম্রজাল  

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের সাহেবনগর গ্রামে গত ৩ জুন আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সাহেবনগর গ্রামের রিপন মিয়া ও নান্নু মিয়া গ্রুপের লোকজনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ছঁড়া গুলির আঘাতে গুরুতর আহত হানিফ মিয়া ৩০ জুন ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।এ ঘটনায় ৫২ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়।
এদিকে নবীনগরের দাঙ্গা নিরসনের লক্ষ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য এবাদুল করিম বুলবুল ও সাবেক এমপি ফয়জুর রহমান বাদলের গঠিত দাঙ্গা নিরসন কমিটি একাধিকবার সাহেবনগর গ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সরেজমিন পরিদর্শন করে   উঠান বৈঠক করেন।

অবশেষে  শনিবার সকালে গ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে স্থানীয় ডাকবাংলোয় সাহেবনগর গ্রামের লোকজনদের কে নিয়ে সাংসদের উদ্যোগে দাঙ্গা নিরসন কমিটির সকল নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে সমঝোতা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভা থেকে গ্রামের শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করার জন্য উভয় পক্ষের লোকজনদেরকে  নির্দেশ দেন এমপি এবাদুল করিম বুলবুল। এরই প্রেক্ষিতে দুপুরে নান্নু মিয়া গ্রুপের লোকজন গ্রামে ফেরার লক্ষ্যে জড়োসড়ো হয়ে এলাকায় প্রবেশ করতে যান। অন্যদিকে এ খবরে গ্রামে অসংখ্য মানুষ জড়ো হয়। এই নিয়ে শুরু হয় ধুম্রজাল। 

নান্নু মিয়া গ্রুপের পক্ষের লোকজন জানান, ৫২ জনকে আসামি করে যে মামলাটি করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫১ জন মামলায় জামিন পেয়েছেন। আসামী সহ তাদের পরিবারের কাউকে গ্রামে ঢুকতে দিচ্ছেন না রিপন মিয়ার গ্রুপের লোকজন।অন্যদিকে রিপন মিয়ার গ্রুপের লোকজন জানান প্রতিপক্ষের সবাই গ্রামে প্রবেশ করতে পারলেও যারা মামলার আসামি তাদেরকে গ্রামে ঢুকতে দেওয়া হবে না, কারন তারা গ্রামে ঢুকলে আবার গ্রামে দাঙ্গা-হাঙ্গামা এবং বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হবে। তবে শ্যামগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আমির হোসেন বাবুল জানান,এমপির নির্দেশে বাদী পক্ষের লোকজন গ্রামে প্রবেশের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে। জানা যায় গ্রামের তিন দিকের রাস্তা বাদী পক্ষের লোকজন ঘেরাও করে রেখেছেন।

এ ব্যাপারে  স্থানীয় সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিম বুলবুল মুঠোফোনে জানান আইন চলবে আইনের গতিতে গ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে যে কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।


 

রিটেলেড নিউজ

আর কত কাঁদবে চৌহালী যমুনা পাড়ের মানুষ 

আর কত কাঁদবে চৌহালী যমুনা পাড়ের মানুষ 

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: : যমুনা নদীর পানি কমছে, আর ভাঙ্গনের তান্ডবলীলা শুরু করেছে  সিরাজগঞ্জের দক্ষিণ চৌহালীতে । এরই মধ্য...বিস্তারিত


সখীপুরে মানববন্ধনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

সখীপুরে মানববন্ধনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

সখীপুর (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা : : সখীপুরে মানববন্ধনের বিরুদ্ধে নিন্দা ও প্রতিবাদ সভা করেছে এলাকাবাসী। সোমবার সকালে বেলতলীতে এ সভা ...বিস্তারিত


ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হল সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হল সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

সংবাদদাতা, দিনাজপুর : :    দিনাজপুর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, জেলা জন্মাষ্ঠমী উদযাপন কমিটির সাবেক সভাপতি ও মোহনী...বিস্তারিত


শুধু সাংস্কৃতিক কর্মী নয় প্রতিটি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে করোনাকালীন প্রনোদনা দিতে হবে : মানববন্ধনে বক্তারা

শুধু সাংস্কৃতিক কর্মী নয় প্রতিটি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে করোনাকালীন প্রনোদনা দিতে হবে : মানববন্ধনে বক্তারা

সংবাদদাতা, দিনাজপুর : :   গত শুক্রবার বিকেলে দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট দিনাজপুর এর আয়োজ...বিস্তারিত


প্রতিবন্ধী স্ব-সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

প্রতিবন্ধী স্ব-সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

সংবাদদাতা, দিনাজপুর : :   ১৮ সেপ্টেম্বর শনিবার দিনাজপুর সদর উপজেলায় ৯নং আস্করপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে সেন্টার ফর ডিজএ...বিস্তারিত


সিরাজগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু

সংকাদদাতা, সিরাজগঞ্জ: : সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার চর মালশাপাড়া মহল্লায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে রিমা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধুর মৃ...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- :   নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- পলাশী একটি বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাস। এই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর