চট্টগ্রাম   শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১  

শিরোনাম

জেলার ৭৫৮৬ জন করোনা রোগীর বিপরীতে ১ টি শয্যা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি::    |    ০৩:২৮ পিএম, ২০২১-০৬-০৯

জেলার ৭৫৮৬ জন করোনা রোগীর বিপরীতে ১ টি শয্যা

ঠাঁই নাই, ঠাঁই নাই। সর্বত্র হাহাকার। হু-হু করে বেড়ে সীমান্তবর্তী জেলা সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ল ২ হাজার। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে নাজেহাল অবস্থা মানুষের। হাসপাতালে নেই ডাক্তার পর্যাপ্ত, বেড সংখ্যা অপ্রতুল। সেই হিসাবে জেলার ৬টি উপজেলা, সদর হাসপাতাল, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল ও বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিকে সব মিলিয়ে ২৯০টি করোনা রোগীর শয্যা রয়েছে। যা দাঁড়ায় জেলার ৭৫৮৬ জন করোনা রোগীর বিপরীতে ১ টি শয্যা। অন্যদিকে, করোনা সংক্রমণ রোধে জেলা প্রশাসন ৭ দিনের লকডাউন। লকডাউন বাস্তবায়নে ৫ম দিনেও মাঠে রয়েছে প্রশাসন।
জানা যায়, ২২ লক্ষ মানুষের বসবাসরত সাতক্ষীরায় প্রথম করোনা রোগী ২০২০ সালের ২৬ এপ্রিল শনাক্ত হলেও এবারের ঈদ-উল-ফিতরের পরে সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে। গত ১৩ মাসে জেলায় ২০৪৭ জন রোগীর শরীরে করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ১৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। শতকরা হিসেবে যা ৫৯.৩৪ শতাংশ। করোনা উপসর্গ সন্দেহে মারা গেছেন ২৩২জন। এর আগের দিন আক্রান্তের শতকরা হার ছিল ৫৫.০৮ শতাংশ। ওই রোগীদের সেবা নিশ্চিতের জন্য জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর ৬টি উপজেলা ৫টি করে মোট ৩০টি, সদর হাসপতালে ৪০ টি সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে ১২০ ও বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিকে প্রায় ১’শ করোনা রোগীর শয্যা প্রস্তুত রেখেছে। যা রোগীদের তুলনায় অপ্রতুল।   
আরও জানা যায়, জেলায় বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত ৫৫১ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। এদের মধ্যে ১১২ জন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ২৩ জন জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বাকিরা বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল ও বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সেজন্য করোনা রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।  এমনকি দেখা দিয়েছে ডাক্তার ও শয্যা সংকট। ভর্তি হওয়ার সুযোগ না পেয়ে অনেকেই বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। এদিকে সাতটি স্থানকে স্পর্শকাতর হিসেবে বিবেচনায় নিয়ে এলাকাগুলোতে সার্বক্ষণিক টহল দিচ্ছে বিজিবি। নিয়মিত টহলের পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে মোটর সাইকেল টহল টিম। সাতক্ষীরার সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলো দিয়ে ভারত থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে টহল জোরদার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। সাতটি স্থানকে স্পর্শকাতর হিসেবে বিবেচনায় নিয়ে এলাকাগুলোতে সার্বক্ষণিক টহল দিচ্ছে বিজিবি। নিয়মিত টহলের পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে  মোটর সাইকেল টহল টিম।
জেলার সচেতন মহল জানান, প্রথম এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল অক্সিজেন। এটি ছাড়া গুরুতর কোভিডের রোগীরা বাঁচতে পারবেন না। কোভিডের আগত ঢেউলি মোকাবেলা করার জন্য প্রতিটি হাসপাতালের পর্যাপ্ত অক্সিজেন ক্ষমতা নিশ্চিত করার এখন সময় এসেছে। আর সেটি করতে ব্যর্থ হলে উপকূলীয় এলাকার বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে যেভাবে মানুষ সর্বশ্রান্ত হয়েছে তার চেয়েও ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। সেজন্য এই পরিস্থিতি থেকে জেলার জনমানুষকে রক্ষা করতে এখনই করোনা বেড এর পাশাপাশি ডাক্তার ও নার্স এর সংখ্যা বাড়ানোর জন্য জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন, স্বাস্থ্য মন্ত্রী, স্বাস্থ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।   
চাহিদার তুলনায় হাসপাতালে শয্যা আর ডাক্তার কম থাকায় এ সংকটের সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাঈন শাফাওয়াত জানান, করোনার পূর্বেও জেলায় ডাক্তার সংকট ছিল। এখনও আছে। করোনা সংক্রমণ শনাক্তের পরে জেলায় রোগীর শয্যা সংখ্যা অপ্রতুল ঠিক তবে তা সামাল দেওয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। এমনকি সদর হাসপাতালে করোনা বেড ১০ টি থেকে বাড়িয়ে ৪০টি বেডে রুপান্তরিত করেছি। এছাড়াও প্রত্যেক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে ৫ টি করে বেড এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখা দিলে বেড সংখ্যা বাড়াতে পারবো। কিন্তু ডাক্তার সংকটের বিষয়টি কিভাবে সমাধান করবো তা ভেবে পারি না। ইতিমধ্যেও বার বার ডাক্তারের পদায়ন চেয়ে স্বাস্থ্যদপ্তরে চিঠি পাঠিয়েছি। কিন্তু তার কোনো সদুত্তর পাইনি। তাই সাতক্ষীরার মানুষকে করোনা নামক ভয়াবহ ভাইরাস থেকে সুরক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থ্যা করতে দ্রুত ডাক্তার সংকট সমাধান করার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।
এ প্রসঙ্গে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়ক ডা. কুদরত-ই-কুদা জানান, ১২০ টি বেড প্রস্তুত আছে। এর অধিকাংশ বেডে রোগী ভর্তি আছে। ডাক্তার ও নার্স সংকটের জন্য ওই ভর্তিকৃত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছি। করোনা যেভাবে সাতক্ষীরায় বেড়েই চলেছে তা সামাল দিতে শয্যার পাশাপাশি ডাক্তার ও নার্স এর সংখ্যা বাড়ানো প্রয়োজন। এর জন্য বার বার লিখছি। কিন্তু কোনো সুফল পাচ্ছি না।
লকডাউন বাস্তবায়ন প্রসঙ্গে সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, জেলার প্রবেশপথগুলোতে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।  ২৪ ঘন্টাই পুলিশ চেকপোস্টগুলোতে সক্রিয় থাকবে। এছাড়া পুলিশ জেলার সর্বত্র টহলরত থাকবে। লকডাউনের জন্য ঘোষিত বিধি-নিষেধ অমান্য করা হলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান পুলিশ সুপার।
এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মোহাম্মদ আল-মাহমুদ জানান, বর্তমানে করোনা ভাইরাসের ই.১.৬১৭ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ অস্বাভাবিকহারে বৃদ্ধি  পেয়েছে, এতে ভারতে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়েছে। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত দিয়ে জনগণের অবৈধ গমনাগমনের মাধ্যমে ভাইরাসটি বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সে কারণে সাতক্ষীরা জেলার সীমান্তবর্তী ভোমরা, গাজীপুর, কুশখালী, কালিয়ানী, মাদরা, কাকডাঙ্গা ও তলুইগাছা এলাকাগুলো স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত করে অবৈধ গমানাগমন প্রতিরোধ পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি জানান, পরিকল্পনা অনুযায়ী সীমান্তবর্তী এলাকার দূরত্ব বিবেচনা করে নিয়মিত টহলের পাশাপাশি অতিরিক্ত টহল হিসেবে মোটর সাইকেল টহলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতির প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে পরিচালিত মোবাইল টহল কার্যক্রমের সময়সীমা বৃদ্ধি করে বর্তমানেও অব্যাহত রাখা হয়েছে। সীমান্তে এ পর্যন্ত ৫৯০টি মোবাইল টহল পরিচালনা করে (গত শুক্রবার পর্যন্ত) অবৈধভাবে দেশে প্রবেশের সময় ৮ জন বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করা হয়েছে।  

রিটেলেড নিউজ

সিরাজগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু

সংকাদদাতা, সিরাজগঞ্জ: : সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার চর মালশাপাড়া মহল্লায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে রিমা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধুর মৃ...বিস্তারিত


চৌহালীতে এখনো দূর্ভোগ কমেনি

চৌহালীতে এখনো দূর্ভোগ কমেনি

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: : বন্যার পানি কমতে শুরু করলেও যমুনা নদী ভাঙ্গনে এবং ঘরবাড়ি, ভিটে-মাটি, জমি-জমা ভেঙ্গে যাওয়া পরিবার গু...বিস্তারিত


কিশোরগেঞ্জ সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল শিক্ষক নিহত

কিশোরগেঞ্জ সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল শিক্ষক নিহত

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : : কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় মো. ফজলুর রহমান ওরফে বাচ্চু মিয়া (৪৫) নামে সরকার...বিস্তারিত


গোবিন্দগঞ্জে মাদকসহ যুবক আটক

গোবিন্দগঞ্জে মাদকসহ যুবক আটক

গোবিন্দগঞ্জ(গাইবান্ধা)প্রতিনিধি : : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে নেশার ট্যাবলেট ট্যাপেন্টাসহ এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার দুপুরে...বিস্তারিত


সিরাজগঞ্জে আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদের আত্মপ্রকাশ

সিরাজগঞ্জে আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদের আত্মপ্রকাশ

সংকাদদাতা, সিরাজগঞ্জ: : আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।  কেন্দ্রীয় সংসদ কর্তৃক ১৫...বিস্তারিত


জবি’তে ১৪৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকার বাজেট পাশ 

জবি’তে ১৪৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকার বাজেট পাশ 

জবি প্রতিনিধি : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবির) ২০২০-২১ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেট এবং ২০২১-২২ অর্থ বছরের মূল রাজস্ব (অন...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- :   নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- পলাশী একটি বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাস। এই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর