চট্টগ্রাম   সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১  

শিরোনাম

ত্রিভূজ পরকিয়ার জেরে বালিশ চাপায় হত্যা : সাড়ে ৪ বছর পর রহস্য উদঘাটন

সংকাদদাতা, সিরাজগঞ্জ:    |    ০২:৩৩ পিএম, ২০২১-০৮-০৫

ত্রিভূজ পরকিয়ার জেরে বালিশ চাপায় হত্যা : সাড়ে ৪ বছর পর রহস্য উদঘাটন

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার চর বেলকুচি গ্রামের বেকারি দোকানের কর্মচারী শাহ আলম (৩৫) হত্যার রহস্য দীর্ঘ ৪ বছর ৭ মাস পর উদঘাটন করেছে সিআইডি পুলিশ। তালাকপ্রাপ্তা এক নারীর তিনজন প্রেমিক। প্রেমিকার কাছে বাকি দুজনকে আসতে নিষেধ করায় পরিকল্পিতভাবে বালিশচাপা দিয়ে খুন করা হয় শাহ আলম নামে এক প্রেমিককে।
বুধবার (৪ জুলাই) সিরাজগঞ্জ সিআইডি কার্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।বুধবার বিকেলে এ হত্যাকাণ্ডের মূল আসামি জুলহাস ওরফে জুলু (৫৭) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।  
সিরাজগঞ্জ সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ২০১৭ সালের ২৭ জানুয়ারি বেলকুচি উপজেলার যমুনার চরাঞ্চলে ছোনের ভেতর থেকে দোকান কর্মচারী শাহ আলমের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।শাহ আলম উপজেলার বওড়া গ্রামের মৃত জামাল মোল্লার ছেলে। ওইদিন নিহতের স্ত্রী মোছা. শিরিনা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলাটি তদন্ত করে। পরবর্তীতে ক্লু-লেস এ মামলাটি সিআইডিকে হস্তান্তর করা হয়। এরপর সিআইডি পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে তদন্ত কার্যক্রম চালায়। মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) এ মামলার অন্যতম আসামি জুলহাস ওরফে জুলুকে কামারখন্দ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে মামলার সব রহস্য উন্মোচিত হয়। বুধবার জুলহাস ওরফে জুলু আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।  আদালতে জুলহাস ওরফে জুলুর জবানবন্দিতে জানা যায়, বওড়া গ্রামের তালাকপ্রাপ্তা নারী কাকলির সঙ্গে শাহ আলম ও জুলহাসসহ তিনজনের প্রেমের সম্পর্ক হয়। বিষয়টি শাহ আলম জানতে পেরে প্রেমিকাকে গালিগালাজ করেন এবং বাকি প্রেমিকদের আসতে বারণ করেন। এতে জুলহাস ও তাদের প্রেমিকাসহ তিনজনই ক্ষুব্ধ হয়ে শাহ আলমকে হত্যার পরিকল্পনা করে। একপর্যায়ে ২০১৭ সালের ২৫ জানুয়ারি রাতে শাহ আলম কাকলির সঙ্গে দেখা করতে এসে তার বিছানায় ঘুমিয়ে পড়েন। এ সুযোগে কাকলি ও তার দুই প্রেমিক বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশ গুমের উদ্দেশে দুর্গম যমুনা নদীর চরের ছোনের ভেতরে ফেলে দেয়। হত্যার রহস্য দীর্ঘ ৪ বছর ৭ মাস পর উদঘাটন করে সিআইডি পুলিশ।
 

রিটেলেড নিউজ

ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হল সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হল সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

সংবাদদাতা, দিনাজপুর : :    দিনাজপুর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, জেলা জন্মাষ্ঠমী উদযাপন কমিটির সাবেক সভাপতি ও মোহনী...বিস্তারিত


শুধু সাংস্কৃতিক কর্মী নয় প্রতিটি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে করোনাকালীন প্রনোদনা দিতে হবে : মানববন্ধনে বক্তারা

শুধু সাংস্কৃতিক কর্মী নয় প্রতিটি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে করোনাকালীন প্রনোদনা দিতে হবে : মানববন্ধনে বক্তারা

সংবাদদাতা, দিনাজপুর : :   গত শুক্রবার বিকেলে দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট দিনাজপুর এর আয়োজ...বিস্তারিত


প্রতিবন্ধী স্ব-সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

প্রতিবন্ধী স্ব-সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

সংবাদদাতা, দিনাজপুর : :   ১৮ সেপ্টেম্বর শনিবার দিনাজপুর সদর উপজেলায় ৯নং আস্করপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে সেন্টার ফর ডিজএ...বিস্তারিত


সিরাজগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু

সংকাদদাতা, সিরাজগঞ্জ: : সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার চর মালশাপাড়া মহল্লায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে রিমা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধুর মৃ...বিস্তারিত


চৌহালীতে এখনো দূর্ভোগ কমেনি

চৌহালীতে এখনো দূর্ভোগ কমেনি

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: : বন্যার পানি কমতে শুরু করলেও যমুনা নদী ভাঙ্গনে এবং ঘরবাড়ি, ভিটে-মাটি, জমি-জমা ভেঙ্গে যাওয়া পরিবার গু...বিস্তারিত


কিশোরগেঞ্জ সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল শিক্ষক নিহত

কিশোরগেঞ্জ সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল শিক্ষক নিহত

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : : কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় মো. ফজলুর রহমান ওরফে বাচ্চু মিয়া (৪৫) নামে সরকার...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

পার্বত্য ভিক্ষসংঘু ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ 

বিহারী চাকমা, রাঙামাটি : :   রাঙ্গামাটির লংগদু কলেজে পার্বত্য ভিক্ষুসংঘ ও পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্র ও ম...বিস্তারিত


“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

“ হিন্দুরা বাংলার দেশপ্রেমি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে আখ্যায়িত করে অশুর আর বাংলার দুশমন ক্লাইভকে আখ্যায়িত করে মা দূর্গা! ”

নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- :   নবাবজাদা আলি আব্বাসউদ্দৌলা :- পলাশী একটি বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাস। এই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর